ফরিদপুরে বাস-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে বাবা-মেয়েসহ নিহত ৩

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় বাসের সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে বাবা-মেয়েসহ তিন আরোহী নিহত হয়েছেন। ঘটনার পর এলাকার বিক্ষুব্ধ জনতা সড়ক অবরোধ করে বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেন। খবর পেয়ে ভাঙ্গা থানা ও হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। রোববার (২২ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ভাঙ্গা উপজেলার মনসুরাবাদ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার ধরমদী গ্রামের বাকি শেখের ছেলে মাইনুদ্দিন সেখ (৩৫), মাইনুদ্দিনের মেয়ে তাবাসসুম (৮) এবং মাইনুদ্দিনের শ্যালক ভাঙ্গা উপজেলার আলগি ইউনিয়নের মিরাজ মাতুব্বরের ছেলে সৌরভ মাতুব্বর (১৬)।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তৈমুর ইসলাম জাগো নিউজকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ভাঙ্গা থেকে একটি মোটরসাইকেলযোগে তারা নগরকান্দার দিকে যাচ্ছিলেন। তারা ভাঙ্গা মনসুরাবাদ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে ঢাকাগামী স্টার লাইন বাসের সঙ্গে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে বাবা-মেয়েসহ মোটরসাইকেলের তিন আরোহী নিহত হন।

ভাঙ্গা থানার ওসি জিয়ারুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, মনসুরাবাদ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বাস-মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাবা-মেয়েসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। ঘটনার পর স্থানীয় জনতা বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেন এবং সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) হেলাল উদ্দিন ভূইয়া বলেন, ঘটনাস্থলে দুজন মারা যান। তাবাসসুম নামের অপর এক শিশুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।